Home / Custom Look / বদলে ফেলুন আপনার ডিভাইস এর ইউজার ইন্টারফেস

বদলে ফেলুন আপনার ডিভাইস এর ইউজার ইন্টারফেস

এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের সবচেয়ে ভাল দিক হলো এর পরিবর্তনশীল বা পছন্দসই ইউজার ইন্টারফেস। এটি খুব সম্ভবত একমাত্র কারন যে জন্যে ব্যাবহারকারীরা এই অপারেটিং সিস্টেম বেছে নেয় অন্য অপারেটিং সিস্টেমের তুলনায়।
যাইহোক, যদি আপনি অন্য ডিভাইস থেকে এন্ড্রয়েড ভিত্তিক ডিভাইস মাত্র ব্যাবহার শুরু করে থাকেন তাহলে হয়তো অনেক কিছু আপনার অজানা রয়ে গেছে। মানে কিভাবে এই ডিভাইস গুলি কাস্টমাইজ করা যায়, এর জন্যে কি লাগে বা কোথা থেকে পাবেন ইত্যাদি।

customize-your-Device-cover

আগেই বলে রাখি রুট এক্সেস সর্বক্ষেত্রে প্রজ্জ্য নয়, তবে হলে ভালো সুবিধা পাওয়া যায়। নিচে কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হবে যেগুলি ব্যাবহার করতে আপনার ডিভাইস ও সিস্টেম সম্পর্কে কিছুটা ধারণা থাকা প্রয়োজন। তাই পূর্ব প্রস্তুতি হিসেবে কিছু বিষয় জেনেনিন। বিডিড্রয়েড সাইটে বেশকিছু লিখা প্রকাশ হয়েছে ইতি পূর্বে, যেগুলি আপনাকে বিষয় গুলি জানতে সহায়তা করবে। যেমনঃ এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম, রুট, কাস্টম রম, কার্নেল, এডিবি, ফাস্টবুট, রিকভারি/কাস্টম রিকভারি, রানটাইম, গ্যাপস ইত্যাদি।

  • ডিভাইস কাস্টমাইজ করতে গেলে সবার আগে চলে আসে ওয়ালপেপার, রিংটোন এগুলির কথা। আর তখনি চলে আসে ZEDGE অ্যাপটির কথা। এই অ্যাপটি দ্বারা আপনি খুব সহজে ওয়ালপেপার, রিংটোন, নোটিফিকেশন সাউন্ড ইত্যাদি পরিবর্তন করতে পারবেন। যার ভাণ্ডার কয়েক হাজার (ক্ষেত্রবিশেষে লখ্যাধিক!)। এছাড়া Wallbase HD Wallpapers অ্যাপটি ব্যাবহার করতে পারেন।

zedgewallbase

  • এরপর ফন্ট পরিবর্তনের পালা। বর্তমান সময়ে কিছু ডিভাইস স্টক রমে এই সুবিধা দিয়ে আসছে। তাই যাদের এই সুবিধা আছে তারা নির্দ্বিধায় পছন্দ মত ফন্ট ইন্সটল করতে পারেন ডিভাইসে। কিন্তু যাদের ডিভাইসে এই সুবিধা প্রাথমিক ভাবে থাকে না তারা ডিভাইসের উপর ভিত্তি করে এই সিদ্ধন্ত নিতে পারেন রুট বা কাস্টম রমের মাধ্যমে।

s3-fonts

  • এবার একটু ডিভাইসের নিরাপত্তার দিকে লক্ষ্য করা যাক। এন্ড্রয়েড ডিভাইসের আরেকটি উল্লেখযোগ্য দিক হলো লক স্ক্রীন। ডিফল্ট লক স্ক্রীন কাস্টমাইজের মাধ্যমে ইউজার ডিভাইসের নিরাপত্তা নির্ধারণ করতে পারেন। তা প্যাটেন্ট লক বা পিন লক অথবা ফিঙ্গার প্রিন্ট লক হতে পারে। আবার এর একটি অসুবিধা হলো একটু ভুল হলে এই বাড়তি নিরাপত্তা ঝামেলা শুরু করে। চিন্তার কিছু নেই, এর সমাধান ও আছে।

lockscreen1

  • প্রয়োজনীয় তথ্যাদি ইউজার ইচ্ছেমত লক স্ক্রীনে প্রদর্শন করাতে পারে। সেটি সময়, দিন-তারিখ, নোট, এমনকি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের নোটিফিকেশন ও হতে পারে। আর অল্প কিছুদিনের মধ্যে আরও বেশ কিছু সুবিধা যোগ হতে যাচ্ছে লক স্ক্রীনে।

lockscreen-shortcuts

  • Launcher – একটি অন্যতম অ্যাপ এই সিস্টেমে। বেশকিছু জনপ্রিয় Launcher আছে বর্তমানে। তার মধ্যে Nova LauncherApex Launcher অন্যতম। স্টক Launcher এর পরিবর্তে এই Launcher গুলি ব্যাবহার করে আরও বেশী সুবিধা নেওয়া যায় ডিভাইস থেকে।

nova-launcher

  • এখন একটু এডভান্স লেভেলের কাস্টমাইজ নিয়ে কথা বলি। আর সেটি যদি ডিভাইস ইন্টারফেস নিয়ে কথা হয় তাহলে সবার প্রথমে চলে আছে Ultimate custom widget (UCCW)Zooper Widget এর নাম। এই অ্যাপ গুলি ব্যাবহার করে আপনি ইচ্ছে মত ডিভাইসের লুক পরিবর্তন করতে পারবেন।

UCCWzooper-widget

  • এলইডি নোটিফিকেশন যার রং ও মাত্রা নির্ধারিত থাকে। আপনি চাইলে এই রং ও মাত্রা পরিবর্তন করতে পারেন Light Flow অ্যাপটি ব্যাবহার করে। এমনকি নির্দিষ্ট নোটিফিকেশনের জন্যে নির্দিষ্ট রং বা মাত্রা নির্ধারণ করতে পারেন।

light-flow

  • কাস্টম রম – এর সুবিধা বলে শেষ করা যাবে না! একটি মানসম্পন্য এন্ড্রয়েড ডিভাইসের আসল মজা এই কাস্টম রমে। এক কথায়, যার মাধ্যমে ডিভাইসে সর্বশেষ এন্ড্রয়েড ভার্সন সমর্থন করাতে পারবেন।

carbon

উল্লেখ্য এই লিখাটি দ্বারা একটি সাধারন ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে মাত্র! যা থেকে নূতন ব্যাবহারকারীরা বা আগ্রহীরা একটা ধারণা পেতে পারেন।

এই পোস্ট সংক্রান্ত কোন বিষয় থাকলে নিচে কমেন্ট করুন। আর অন্য কোন বিষয়ে জানতে বা জানাতে BD DROID Group পোস্ট করুন।

এই সাইটে আমার সম্পাদিত লিখা সমূহ

Mobile Update

About Md ALAMGIR

প্রযুক্তির ক্রমবর্ধমান অগ্রগতির সাথে তাল মিলিয়ে নিজের ক্ষুদ্র জ্ঞান সকল বাংলা ভাষা-ভাষীর মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার প্রচেষ্টা মাত্র।
আপনার মূল্যবান কমেন্ট করুন :)