Home / ট্যাবলেট রিভিউ / Samsung Galaxy Tab 3 8.0 হ্যান্ডস অন রিভিউ

Samsung Galaxy Tab 3 8.0 হ্যান্ডস অন রিভিউ

স্মার্টফোন এর বাজারে মোবাইল ডিভাইস এর সাথে সাথে ট্যাবলেট ইউজার ও বেড়েছে অধিক হারে। আর ২০১০ থেকে এই পর্যন্ত ট্যাবলেট এর অ্যাওয়ার্ড এর প্রায় বেশিরভাগ এ নিচ্ছে Samsung.  Samsung তাদের Galaxy Tab এর সাথে আমাদের পরিচয় করায় ২০১০ সালে এবং সেটিই ছিল প্রথম এন্ড্রয়েড ট্যাবলেট। প্রথম সেই ট্যাবলেট টি ছিল ৭ ইঞ্চি। তবে পর্যায়ক্রমে আমরা Samsung থেকে পেলাম 8.9 &  10.1 inch এর ভার্সনগুলো। গত বছর Samsung বাজারে দিয়েছে Galaxy Tab 2 তবে ২০১৩ তে নতুন ট্যাব আমরা পেয়েছি Tab 3.  এই ট্যাব টি নিয়ে অনেকে হ্যান্ডস অন রিভিউ চেয়েছেন। তাই আজ লিখতে বসে গেলাম। চলুন দেখে নেই Samsung Galaxy Tab 3 8.0 হ্যান্ডস অন রিভিউ।

Galaxy Tab 3.8.0 hands on review

Galaxy tab 3.8.0

 

Samsung Galaxy Note 3.8.0 White

Samsung Galaxy Note 3.8.0

Design: প্রথমেই আসি ট্যাবটির ডিজাইন সম্পর্কে। ট্যাবটি প্রথম দেখাতেই আপনি বুঝতে ভুল করবেন না জে  Samsung এর প্রোডাক্ট। কারণ ট্যাব টি দেখতে অনেকটা Samsung Galaxy S3 এর মত। বলা জায় এস ৩ এর বড় ভার্সন এটি। এস৩ এর মত এটিতে থাকছে হোম বাটন , ক্যাপাসিটিভ বাটন ও ব্যাক বাটন। ট্যাব টি White, Gold দুই কালার এর রিলিজ করা হয়েছে এবং ব্যাক ক্যামেরা টি দেয়া হয়েছে উপরের লেফট কর্নার এ ।

Samsung Galaxy Tab 3 camera review

ডিভাইসটি প্রায় 309.1 গ্রাম এবং 7.36mm চিকন যদিও নেক্সাক্স ৭ থেকে একটু হেভি। বাটন ও পোর্ট সম্পর্কে বলতে গেলে উপরের কর্নার এ থাকছে মাইক্রোফোন জ্যাক এবং ডান সাইড এ থাকছে পাওয়ার বাটন এবং তার নিচেই থাকছে ভলিউম বাটন দুইটি। ডিভাইস টির বটম এ থাকছে মাইক্রইউএসবি পোর্ট এবং দুইটি stereo speakers। এছারাও ডিভাইস এর অপর পাশে থাকছে মাইক্রোএসডি কার্ড স্লট।

samsung galaxy note 3 review hands on

tab 3 review

 

galaxy note 3 price in bangladesh

 Hardware: Galaxy Tab 3 8.0 তে থাকছে 8-inch WXGA (1200 x 800) TFT ডিসপ্লে যা 189 ppi, 1.5GHz dual-core Exynos 4212 Dual SoC প্রসেসর, Mali 400MP GPU, 1.5GB of RAM এবং ১৬ অথবা ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ।এছারাও  microSDXC স্লট এ থাকছে আপটু ৬৪ জিবি পর্যন্ত সাপোর্ট। Samsung এর এই ট্যাব টিতে আপনি পাচ্ছে ৫ মেগাপিক্সেল মেইন ক্যামেরা এবং 1.3MP ফ্রন্ট ফেইসিং ক্যামেরা। তবে এটার ব্যাটারি থাকছে খুব পাওয়ারফুল। কারন এই ট্যাব এ স্যামসাঙ দিচ্ছে 4,450mAh, IR ব্লাস্টার। এই ট্যাব টি নেটওয়ার্ক এর উপর ভিত্তি করে তিনটি ভার্সন এ পাবেন যেমন- WiFi only, 3G & WiFi, and 4G/LTE & WiFi।

samsung galaxy tab 3 in bd

 

Camera:  আগেও বলেছি ডিভাইসটিতে থাকছে ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। অনেকের মনে প্রশ্ন জাগতে  তাই বলে নিচ্ছি এই ট্যাব এ ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরাটি mediocre এবং ফ্রন্ট এ থাকছে ১.২ মেগাপিক্সেল ফেসিং ক্যামেরা। ফ্রন্ট ফেসিং ক্যামেরাটি ভিডিও চ্যাট এর জন্যে অনেকটা ভালো হলেও একটু স্টিল টাইপ ইমেজ কেপচার করে বলে আমার মনে হয়। এছারাও ক্যামেরা অ্যাপ এ থাকছে “Sound and Shot” ও “Beauty Face” ফিচার যা ডিফল্ট এ দেয়া হয়েছে। তবে এতে HDR shots পাচ্ছেন না এবং বাই ডিফল্ট ৩.২ মেগাপিক্সেল মুড একটিভ করা আছে মেইন কেমেরায়।

samsung galaxy note 3 camera

 

Performance:  Samsung এর এই ট্যাব টিতে দেয়া হয়েছে Exynos 4212 dual-core processor clocked at 1.5GHz এবং 1.5GB of RAM।  যদিও কনফিগ টা অতটা খারাপ না তবে আধুনিক ট্যাব হিসেবে আরেকটু ফাস্ট হউয়া দরকার ছিল বলে আমার মনে হয়।

অনেকে আবার বেঞ্চমার্ক এর দিকে প্রায়োরিটি দিয়ে থাকেন তাই আপনাদের জন্যে AnTuTu টাই দিলাম যেখানে ট্যাব টি স্কোর রয়েছে ১০হাজার এর ঘরে। তবে তুলনামূলক ভাবে অন্য ডিভাইস গুলো এর চেয়ে ডাবল স্কোর করছে বেঞ্চমার্ক এ।

samsung galaxy tab 3 banchmark test

 

Battery: পারফর্মেন্স স্কোর টা তুলনামূলক ভাবে কম হলেও ব্যাটারি রিভিউ করতে গিয়ে রিতিমত অবাক হতে হল। কারন এই ট্যাব টি অসাধারণ ব্যাটারি ব্যাকআপ দিতে সক্ষম। কারন ডিভাইস টিতে দেয়া হয়েছে 4450mAh সমৃদ্ধ ব্যাটারি। আপনি নরমাল ইউজ করলে ডিভাইস টি প্রায় ১-২দিন ব্যাকআপ দিবে এবং হেভি ইউজ এ প্রায় ১১-১৪ ঘণ্টা ব্যাকআপ পাবেন ব্যাটারিতে যা ইউজারকে এই ট্যাব এর প্রতি আকৃষ্ট করছে। 

samsung galaxy tab 3 battery

 

Software: Samsung এর এই ট্যাব টি বাই ডিফল্ট Android 4.2.2 তে রিলিজ করা হয়েছে তবে এতে আপনি গুগল এডিশন পাচ্ছেন না। আপনাকে স্যামসাঙ এর TouchWiz ইউজার ইন্টারফেস ইউজ করতে হবে। তবে স্মার্টফোন এর ইন্টারফেস ও ট্যাব এর ইন্টারফেস এ কিছুতা ভিন্নতা পাবেন যদিও উভয় touchWiz ইন্টারফেস । এছারাও কিছু আলাদা সফটওয়্যার ফিচার ও থাকছে এতে। নিচে কিছু ইন্টারফেস ও ফিচার এর স্ক্রিনশট দিলাম।

samsung galaxy tab 3

ট্যাব ৩ 2013-08-08 22.15.55

 

এই হল Samsung Galaxy Tab 3.8.0। ওভারঅল দেখতে গেলে ডিভাইসটি খারাপ না। ১০ থেকে আমি এটাকে ৮ দিবো। এবং প্রাইস নিয়ে যদি বলতে যাই তাহলে অতো বেশি ও না কারন তিনটি ভার্সন এর প্রাইস একটু কম বেশি হলেও আমি মনে করি স্যামসাঙ ইউজার এর নাগালের মদ্ধেই আছে। এছারাও আপনি যদি এই ট্যাবটি কে অ্যাপেল এর নতুন আইপেড মিনি এর সাথে তুলনা করেন তাহলে অপারেটিং সিস্টেম এবং প্রাইস দুইদিক থেকেই স্যামসাঙ এর এই ট্যাব টি এগিয়ে আছে।

Don't expect anything mind-blowing in the camera department

The Tab's battery has a hair more juice

সুতরাং ট্যাবলেট লাভাররা স্যামসাঙ এর এই ট্যাব টি অনায়েসে নিতে পারেন। তবে যদি পারফর্মেন্স আরেকটু ভালো ও সফটওয়্যার আপটুডেট ইউজ করতে চান তাহলে আমার পছন্দ নেক্সাস৭।
আপনি যদি চান দেখে নিতে পারেন এই ট্যাব এর ফুল স্পেসিফিকেশন– Full Specification এবার আপনি চাইলে কমেন্ট এ আপনার মতামত জানাতে পারেন।

 

 

Mobile Update

About Infrared prince

এনড্রয়েড সম্পর্কে ততটা জানিনা কিন্তু চেষ্টা করছি জানার ও সবাইকে জানানোর।
আপনার মূল্যবান কমেন্ট করুন :)